কাল হো না হোঃ মুভি রিভিউ – Kal Ho Naa Ho

-আমরা অনেকেই মুভি দেখি জাষ্ট ফর ফান বা অন্য অর্থে একটু এন্টারটেন হওয়ার জন্য। কিন্তু কিছু মুভি কখনো কখনো পর্দার বাহিরে এসে আমাদের জীবনে ঢুকে উকি দেয়। আমাদের জীবন কে নাড়া দেয়। জীবনের জটিল অংকের হিসেব মিলাতে এক নতুন উদ্দীপনা দেয়। কাল হো না হো বলিউডের তেমন একটি এভারগ্রিন ফিল্ম।

-ন্যায়না(প্রিতি জিনতা)হতাশাগ্রস্ত একজন তরুনি। মা আর দাদির প্রত্যেক দিনের ঝগড়া ও একটি ফ্লপ বিজনেস এবং একমাত্র বন্ধু রোহিত(সাইফ আলি খান)এই নিয়েই তার জীবন। কিন্তু হঠাৎ একদিন আমান(শাহরুখ খান) নামের একজন মানুষ ন্যায়নার জীবনে এসে তার জীবনকে চিরদিনের মত পাল্টে দেয়।

– ফুল মার্কস টু ডিরেক্টর নিখিল আদভানি ও করন জোহর কম্বো কে। মানুষের জীবনে কে এত গভীর ভাবে উপলব্ধি করে তা পর্দায় তুলে ধরার জন্য। মিউজিক, কষ্টিউম, এ দুটি জিনিষ একটু আলাদা করে নজর কেড়েছিল সেই সময়।

-একটা সময় সপ্তাহে অন্তত একবার হলেও মুভিটি দেখতাম। কর্ম আর সংসার জীবন এখন আর সে সুযোগ দেয় না। কিন্তু মানুষের জীবন নিয়ে এই মুভির যে উদ্দীপক ভুমিকা ছিল সেটা সেটা আমার কাছে চিরদিন অপরিবর্তিত থাকবে।

 

সোর্সঃ ফেসবুক