নেপোয় মারে দই! দারওয়ান গেল কই?

নেপোয় মারে দই অর্থাৎ ধূর্ত লোকের ফল প্রাপ্তি। দেশে এখন অনেক ঘটনা, দুঃর্ঘটনা ! হামলা, মামলা, হত্যা চলছেই। সামনে জাতীয় নির্বাচন। শিক্ষা ব্যবস্থার নাজুক অবস্থা। কোটা পদ্ধতির সংস্কার নিয়ে চলছে আন্দোলন। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে কিছু ধুরন্ধর ব্যক্তিরা নিজেদের আখের গোছাতে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারে নেমেছেন। ঝড়ো হাওয়ায় বৃন্তুচ্যুৎ আম ভরছেন নিজ ঝোলাতে। দুঃর্যোগে যেখানে সাধারণ মানুষের ত্রাহি অবস্থা তখন কোন কারণ ছাড়াই কিছু আন্তর্জাতিক কোম্পানী তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সমাগ্রীর দাম বাড়িয়ে দিয়ে মুনফা লুটছে। অথচ আমাদের দেশের কনজ্যুমার্স অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ (ক্যাব) এর পক্ষ থেকে কোন প্রতিরোধ কিংবা প্রতিবাদ করা হয় নি।

কিছুদিন পূর্বেও একটি হুইল কাপড় কাচার সবানের দাম ছিলো ১৫ টাকা পরবর্তীতে ১৮ টাকা যা এখন ২০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। একই ভাবে ১ কেজি হুইল পাউডার ৬০ টাকা, পরবর্তীতে ৬৫ টাকা আর এখন ৭২ টাকা ! ২৫ টাকার ১০০ গ্রাম লাক্স টয়লেট সাবান এখন বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়। কোন পরিস্থিতি আর কোন কারণে এমন দাম বৃদ্ধি তার মনিটরিং করার কি কেউ নেই ? হতে পারে দেশের ঘোলাটে পরিস্থিতিতে এই সব ক্ষুদ্র বিষয়ে নজর দেবার সময় পাচ্ছেন না কর্তা ব্যক্তিরা। আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে নেপোয় দই মেরে দিচ্ছেন। আমরা সাধারণ ভোক্তারা এই পরিস্থিতির উত্তরণ চাই। ঘোলা পানিতে নেপোদের দই মারা হাত গুড়িয়ে দিতে চাই। ‘জাগো বাহে কোন্ঠে সবাই’